LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

মনের চিকিৎসক সানজিদা আফরোজ। তবে তিনি নিজেকে বলতে ভালোবাসেন, মানসিক স্বাস্থ্য পরামর্শদাতা। ডাক্তার বা পরামর্শদাতা; পরিচয় প্রদানে ভিন্নতা থাকলেও, কাজ কিন্তু অভিন্ন। মানুষের মন নিয়ে কাজ তার। লাইফ এর পক্ষ থেকে সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন কবীর হোসাইন।

লাইফ: আপনার জন্ম এবং বেড়ে ওঠা কোথায়?

সানজিদা আফরোজ: আমার জন্ম খুলনায়। ছোটবেলাও কেটেছে খুলনা শহরেই।

লাইফ: কেমন ছিল ছোটবেলা?

সানজিদা আফরোজ: বেশ ছোটবেলায়ই বাবাকে হারিয়েছি। অবশ্য ভাইদের অভিভাবকত্বে বস্তুগত দিক থেকে কোনো অভাব বোধ করিনি। কিন্তু বাবা না থাকাটা, বিশেষত আমাদের সমাজে একটি মেয়ের জন্য বেশ কষ্টের।

লাইফ: আপনার জীবনে আপনার মায়ের ভূমিকা কেমন?

সানজিদা আফরোজ: আমার বাবা না থাকাটা তো এক ধরনের ছায়াহীনতা। এমতাবস্থায় আমার মা রীতিমতো বাবার ভূমিকা পালন করেছেন। এতগুলো সন্তান, সবাই পড়াশোনা করছে, সবার সব চাহিদা পূরণ করে কী নিপুণভাবে তিনি সংসারটা সামলেছেন! সবাইকে স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এখন ভাবলেও অবাক লাগে! আমার মা একজন ভীষণ সংগ্রামী নারী।

লাইফ: একজন নারীর উঠে আসার ক্ষেত্রে আমাদের সমাজে কতগুলো বাধা বিপত্তির মুখোমুখি হতে হয়। সেটা অধিকাংশ সময়ই হয় সমাজ থেকে, অনেক ক্ষেত্রে পরিবার থেকেও। আপনার ব্যাপারে পরিবার কতটা ইতিবাচক ছিল?

সানজিদা আফরোজ: ঠিক এই জায়গাটাতে আমার নিজেকে ভীষণ সৌভাগ্যবতী মনে হয়। হ্যাঁ, পরিবার থেকে কিছু বিধি-নিষেধ যে ছিল না তা নয়। কিন্তু পড়াশোনার ব্যাপারে আমার পরিবার সব সময়ই সর্বোচ্চ উদারতা দেখিয়েছে।

লাইফ: আপনি তো পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। একাডেমিকভাবে সাইকোলজি, কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিষয়ে পড়াশোনা করেছেন এবং এখনো এসব নিয়েই গবেষণা ও কাজ করে যাচ্ছেন। এই কাজটিকে পেশা হিসেবে নেওয়ার কোনো বিশেষ কারণ ছিল কি? পড়াশোনার পর স্বাভাবিক গতিতেই এই পেশায় চলে আসা?

সানজিদা আফরোজ: স্রোতে গা ভাসিয়ে এই পেশায় আমি এসেছি ব্যাপারটি কিন্তু মোটেই সেরকম কিছু নয়। ছাত্রাবস্থায় সব সময় পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করেছি। বিষয়টার প্রতি ভালোবাসা ছিল নিশ্চয়ই। এক সময় বুঝতে পারলাম, আমি এই কাজটিই করতে চাই। মানুষের মন নিয়ে কাজ করার যে অদ্ভুত আনন্দ, তা আসলে বলে বোঝানো যাবে না।

লাইফ: এটি অবশ্য একদম ঠিক বলেছেন। আচ্ছা, আপনার কাজ মানুষের মন নিয়ে। মন খারাপ হলে, মনের অসংলগ্নতা দেখা দিলে, তা ঠিক পথে আনার কাজটি করে থাকেন আপনি। আপনার নিজের মন খারাপ হলে আপনি কী করেন?

সানজিদা আফরোজ: মন খারাপ হলে আমি রিলাক্সেশন করি, ইয়োগা করি। আর প্রতিদিনই নিয়ম করে যে কাজটি করি তা হলো, নিজেকে সময় দেওয়া। নিজেকে ভালো রাখার জন্য এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ।

ঝটপট প্রিয় পাঁচ

লাইফ: প্রিয় বই
সানজিদা আফরোজ: মীর মশাররফ হোসেনের বিষাদসিন্ধু।
লাইফ: প্রিয় রঙ
সানজিদা আফরোজ: যেকোনো উজ্জ্বল রঙ। নির্দিষ্ট করে বললে, সবুজ রঙ।
লাইফ: প্রিয় পোশাক
সানজিদা আফরোজ: শাড়ি।
লাইফ: প্রিয় একটি বাংলা শব্দ
সানজিদা আফরোজ: আত্মসম্মান
লাইফ: প্রিয় মুহূর্ত
সানজিদা আফরোজ: সূর্যোদয়ের মুহূর্ত।

- A word from our sposor -

spot_img

মানুষের মন নিয়ে কাজ করা অদ্ভুত আনন্দের: সানজিদা আফরোজ